খবর

বিশ্বের সঙ্গে তাল মেলাতে তথ্য প্রযুক্তি শিক্ষার বিকল্প নেই সালমান এফ রহমান

19 January, 2020
Source: The Daily Manabzamin

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ও ঢাকা-১ আসনের সংসদ সদস্য সালমান এফ রহমান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ নামে একটি দেশ বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত হতো না। বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ পুনর্গঠনে হাত দিয়েছিলেন সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে দেয়নি মীরজাফররা। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনা নিরলস চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। দেশ উন্নয়নে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সকলকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। গতকাল বিকালে উপজেলার নয়াকান্দা হামিদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সালমান এফ রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধু এ দেশের জন্য অনেক কষ্ট করেছেন, জেল খেটেছেন। শুধু সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য। জননেত্রী শেখ হাসিনা তার বাবার স্বপ্নকে বুকে লালন করে বাস্তবে রূপ দিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। ফলে দেশ আজ উন্নত হয়েছে।

আর সেই জন্যই আজ বিদেশিরা এদেশটাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখছেন। আগামীর বাংলাদেশ পাল্টে যাবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। তিনি আরো বলেন, এদেশের অর্ধেকের বেশি নারী।

তাই বর্তমান সরকার নারীদের বিষয়ে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে। এদেশের প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, বিচারপতি, সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী, পুলিশ বাহিনী, ডিসি, এসপি, ইউএনও বড় বড় রাষ্ট্রীয় পদে নারীরা অধিষ্ঠিত আছেন। তিনি আরো বলেন, দোহার-নবাবগঞ্জ উপজেলাকে বাংলাদেশের মধ্যে সব চেয়ে আধুনিক উপজেলা বানাতে চাই। দোহার-নবাবগঞ্জকে ঢেলে সাজানো আমার প্রথম ও প্রধান কাজ। মাদক, সন্ত্রাস, ভূমিদস্যু, সামাজিক যে কোন অপরাধ দূর করতে প্রসাশনের পাশাপাশি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমরা ভাল মানুষ হওয়ার চেষ্টা কর। তোমাদের মধ্যে হতাশা কাজ করে বেশি। হতাশ হওয়া যাবে না। সময়কে কাজে লাগাতে হবে। কেবলমাত্র ভালো শিক্ষার্থী হলে হবে না, উত্তম চরিত্রবান আদর্শবান মানুষ হতে হবে। সমাজ পরিবর্তনের হাতিয়ার হতে হবে। তোমাদের দিকে দেশ তাকিয়ে আছে, তোমরাই আগামী দিনের নেতৃত্ব দিবে। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলাতে প্রযুক্তিগত শিক্ষা গ্রহণের বিকল্প নেই। তাই সকলকে সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি তথ্য ও প্রযুক্তিগত শিক্ষা গ্রহণের উপর জোর দেয়ার আহবান জানান।

তিনি বলেন, দ্রুত ২টি অর্থনৈতিক অঞ্চল করা হবে যার প্রাথমিকভাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে । কেরানীগঞ্জের জিনজিরা থেকে নবাবগঞ্জ, দোহার হয়ে শ্রীনগর পর্যন্ত ডাবল লেনের রাস্তার কাজ সমাপ্তির পথে। দোহার নবাবগঞ্জের ব্রিজ কালভার্ট ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণে শত কোটি টাকা টেন্ডার হয়েছে। সুতরাং উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, দোহার-নবাবগঞ্জ রক্ষা বাঁধ নির্মাণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। দোহার নবাবগঞ্জে উন্নয়নের জন্য ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। এর মধ্যেও কিছু বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো. পান্নু মিয়া। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন আহমদ ঝিলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন জালাল। এসময় উপস্থিত ছিলেন পিএমও মো. তোফাজ্জল হোসেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু, দোহার সার্কেলের এএসপি এস এম জহিরুল ইসলাম, নবাবগঞ্জ উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. রাজিবুল ইসলাম, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহামন ভূঁইয়া কিসমত, দোহার থানা অফিসার ইনচার্জ সাজ্জাদ হোসেন, নবাবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তফা কামাল, প্রমুখ।