খবর

বিশ্বব্যাংককে বাংলাদেশের উন্নয়নে সহায়তা করার আহ্বান সালমান এফ রহমানের

16 November, 2019
Source: The Daily Janakantha

বৈশ্বিক ঋণদাতা সংস্থাকে বাংলাদেশের উন্নয়নে সহায়তা করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারী শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও বিচক্ষণ নেতৃত্বের গুনে বাংলাদেশ আজ প্রশংসনীয় এ পর্যায়ে উন্নীত হয়েছে। গত শুক্রবার ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশ্বব্যাংকের সদর দপ্তরে সংস্থাটির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এ আহ্বান জানান।

আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-এর নির্বাহী চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ও যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের ইকোনমিক মিনিস্টারসহ বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের অন্যান্য সদস্যরা। আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্বব্যাংকের বাণিজ্য, বিনিয়োগ ও প্রতিযোগিতা বিষয়ক বৈশ্বিক পরিচালক ক্যারোলাইন ফ্রেউন্ড, কৌশল ও অপারেশন, দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক পরিচালক সামিয়া মসাদেক, পরিচালক জুবিদা আলাওয়া, উন্নয়ন অর্থনীতি বিষয়ক পরিচালক সিমিন্যন জাঙ্কভ, বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের কান্ট্রি ডিরেক্টর কিমিয়াও ফ্যান ও সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব, বর্তমানে বিশ্বব্যাংকে বাংলাদেশের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শফিউল আলম। এসব বৈঠকে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও বিশ্বব্যাংক গ্রুপের সম্ভাব্য সহযোগিতা ও সমর্থনের বিষয়টি গুরুত্ব পায়।

বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল ও বিশ্বব্যাংকের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ খাতে সহযোগিতার ক্ষেত্র বৃদ্ধি করতে একমত হন। এর মধ্যে রয়েছে বৈদেশিক প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে ব্যবসা-বাণিজ্য সহজীকরণ সম্পর্কিত সংস্কার, বিনিয়োগ সংশ্লিষ্ট আইন-বিধি সংস্কার, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বৃদ্ধি, চতুর্থ শিল্প-বিপ্লব মোকবেলার লক্ষ্যে দক্ষতা উন্নযন, ঝুঁকি বিবেচনা ভিত্তিক ব্যবস্থাপনা প্রবর্তন, ব্যবসা সহজীকরণের লক্ষ্যে সমন্বিত ওয়ান স্টপ শপ কার্যকর ইত্যাদি। ফলপ্রসু আলোচনায় উভয পক্ষই তাদের সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে এবং উপরোক্ত ক্ষেত্রগুলিতে একযোগে কাজ করতে সম্মত হয়েছে।

এর আগে সালমান ফজলুর রহমান যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসি-তে অবস্থিত প্রভাবশালী দুই মার্কিন থিংকট্যাংক হাডসন ইন্সটিটিউট ও হেরিটেজ ফাউন্ডেশনে বক্তব্য রাখেন। এছাড়া দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক ভারপ্রাপ্ত মার্কিন সহকারী মন্ত্রী অ্যালিস ওয়েলসের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হন। হাডসন ইন্সটিটিউটে ‘বাংলাদেশের দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি: সুযোগ ও চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় মাননীয় উপদেষ্টা একটি পাওয়ারপয়েন্ট উপস্থাপনা করেন। এতে শিক্ষাবিদ, গবেষক, মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি, সংবাদমাধ্যম ও নীতি ও ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।