খবর

বাজেট পাসের আগেই অবণ্টিত মুনাফায় করারোপের বিষয়ে সিদ্ধান্ত

25 June, 2019
Source: The Daily Bonikbarta

পুঁজিবাজারে নিবন্ধিত কোম্পানির মুনাফা থেকে রাখা সঞ্চিতি বা রিটেইনড আর্নিংসের ওপর করের বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে। গতকাল এ তথ্য জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। তিনি বলেন, বাজেট পাসের আগেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

গতকাল রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে ‘ওয়ার্ল্ড ইনভেস্টমেন্ট রিপোর্ট ২০১৯: বাংলাদেশ সিনারিও’ শীর্ষক মিডিয়া ব্রিফিংয়ের আয়োজন করে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সালমান এফ রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি সম্পর্কিত মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ ও বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী। ব্রিফিংয়ের প্রতিপাদ্য বিষয়ে উপস্থাপন করেন বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর। ব্রিফিংয়ে ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম।

১৩ জুন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাবে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল তার বক্তৃতায় বলেন, কোম্পানির রিটেইনড আর্নিংস পরিশোধিত মূলধনের ৫০ শতাংশের বেশি হলে তার ওপর ১৫ শতাংশ করারোপ করা হবে। এ পরিপ্রেক্ষিতে কোম্পানিগুলোর বিনিয়োগযোগ্য তহবিল কমে যাবে এবং বিদেশী কোম্পানিগুলোর কাছে যেহেতু রিটেইনড আর্নিংস বেশি, সেহেতু তারা সেটা লভ্যাংশ হিসেবে বিতরণ করে দিলে টাকা বিদেশে চলে যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে আসছিলেন সংশ্লিষ্টরা।

গতকাল বিডা আয়োজিত মিডিয়া ব্রিফিং প্রসঙ্গে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেন, রিজার্ভ বা রিটেইনড আর্নিংসের যে কথাটা আছে, তা প্রস্তাবিত বাজেটের বিষয়। অনেক জায়গা থেকেই এটা নিয়ে বলা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা সিরিয়াসলি আলোচনা করছি। এখানে দুটো জিনিস আছে; একটা হলো রিটেইনড আর্নিংসের ওপর ট্যাক্স প্রকৃতপক্ষে ডাবল ট্যাক্সেশন। কারণ রিটেইনড আর্নিংসটা কর পরিশোধ-পরবর্তী হিসাব। আবার এটা রেট্রোস্পেক্টিভ বা ভূতাপেক্ষ ট্যাক্স। এ বিষয়টি চিহ্নিত। আমি মনে করি, ৩০ জুন বাজেট পাসের আগে এটার ওপর কাজ হবে।

গতকালের ব্রিফিংয়ে ডুয়িং বিজনেস সূচক, দক্ষ জনশক্তি প্রসঙ্গে সালমান এফ রহমান বলেন, অবকাঠামো খাতে উন্নয়ন হওয়ায় এ দেশে বিনিয়োগ বাড়ছে। দেশে দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে কাজ করছে সরকার। ব্যবসার পরিবেশ নিয়ে বিশ্বব্যাংকের ডুয়িং বিজনেস সূচকে বাংলাদেশ ২০২১ সালের মধ্যে ৫০তম অবস্থানে আসবে জানিয়ে সালমান এফ রহমান বলেন, বিনিয়োগকারীদের খুব সহজে সেবা দেয়ার কাজ চলছে। উদ্যোক্তারা আমাদের কাছে আগে। এজন্য ওয়ান স্টপ সার্ভিস শিগগিরই কার্যকর হবে। বিশ্বব্যাংকের পর্যালোচনায় প্রাথমিকভাবে আমাদের অগ্রগতি ভালো। আশা করি চলতি বছর সূচকে আমরা ব্যাপক অগ্রগতি করব। কারণ অনেক কাজ হয়েছে।