খবর

আওয়ামী লীগ মানুষের ভালোবাসা নিয়েই ক্ষমতায় যেতে চায়

26 December, 2018
Source: The Daily Amader Shomoy

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি খাত উন্নয়নবিষয়ক উপদেষ্টা ও ঢাকা-১ (দোহার-নবাবগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সালমান এফ রহমান বলেছেন, বাংলাদেশ আজ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এ দেশের জনগণ আবার শেখ হাসিনাকে সরকারপ্রধান হিসেবে দেখতে চায়। তাই যেনতেনভাবে আমরা ক্ষমতায় যেতে চাই না। মানুষের ভালোবাসা ও দোয়া নিয়ে ক্ষমতায় আসতে চাই। গতকাল নবাবগঞ্জের বিভিন্ন উঠান বৈঠক ও পথসভায় তিনি এ কথা বলেন।

সালমান এফ রহমান বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন বিশ্বদরবারকে চমকে দিয়েছে। স্বাধীনতার আগে পাকিস্তান বাংলাদেশকে তাদের পায়ের নিচে রেখেছিল। শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ সম্মানের সঙ্গে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। তাই বর্তমান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যখন পাকিস্তানকে ইংল্যান্ডের মতো রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছিলেন, ঠিক তখনই সেখানকার সুশীল সমাজের লোকেরা প্রধানমন্ত্রীর মুখের ওপর বলে দিয়েছেন আগে পাকিস্তানকে বাংলাদেশ করে দেখান। তাই এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন। তিনি বলেন, আমার নামে অনেকেই অনেক মিথ্যা কথা বলে বেড়াচ্ছেন। আমার সঙ্গে কেউ নাকি সহজে দেখা করতে পারবেন না। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই, আমার সঙ্গে দেখা করতে কারও কোনো মাধ্যম লাগবে না। সরাসরি দেখা করতে পারবেন।

একই অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট শিল্পপতি ইউনিক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহা. নূর আলী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুদ্ধিমত্তা দিয়ে সুষ্ঠুভাবে দেশ পরিচালনা করে যাচ্ছেন। তিনি কখনই সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করেননি। তারই প্রমাণ মিলেছে ঢাকা-১ আসনের প্রার্থী নির্বাচনে।

নূর আলী বলেন, আপনারা খুবই ভাগ্যবান। সালমান এফ রহমানের মতো স্বনামধন্য ব্যক্তিকে আপনাদের প্রার্থী হিসেবে পেয়েছেন। তিনি এমন একজন ব্যক্তি যার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে। তিনি যদি কোনো কাজ নিয়ে তার কাছে যান আমরা জানি তা বিফল হয় না। তাই আজ আপনাদের ভাগ্যোন্নয়নের সুযোগ এসে গেছে। আপনারা যদি শেখ হাসিনার নৌকায় ভোট দিয়ে সালমান এফ রহমানকে সংসদে পাঠাতে পারেন কেবল তখনই আপনারা এ উন্নয়নের সুবিধা পাবেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা বলেন, বঙ্গবন্ধুর ডাকে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। আজ বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করেছে। শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। এ উন্নয়নের ভাগীদার আপনারাও হতে পারেন। তাই স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে বিজয়ী করতে আপনার মূল্যবান ভোট নৌকা মার্কায় দিতে হবে। তিনি বলেন, আজ আমি খুব খুশি। আপনারা আজও আমাকে মনে রেখেছেন। ২০০১ সালে আপনাদের ভালোবাসা নিয়ে নৌকার প্রার্থী হয়েছিলাম। কিন্তু বিএনপির ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে পরাজিত হতে হয়। আমি সেদিন অনেক ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছিলাম। দেশ ছিল বিএনপির হাতের পুতুল। তারা যা বলত তাই হতো। সেদিন আমি একা নই, পুরো বাংলাদেশের আওয়ামী লীগ তাদের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল। আজ মানুষ ভালো-মন্দের বিচার করতে পারে। তাই তো শেখ হাসিনার সরকার দীর্ঘ ১০ বছর ক্ষমতায়। আমার বিশ্বাস আপনারা যদি নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনতে পারেন তবে শুধু দেশের নয় আপনাদের নিজেরও ভাগ্যোন্নয়ন হবে। তিনি বলেন, ঢাকা-১ আসনে যদি সালমান এফ রহমান জেতেন শুধু জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী হবে না, আপনাদের জীবনমানেরও উন্নয়ন হবে।

নূর আলী সালমান এফ রহমানকে সমর্থন দেওয়া নিয়ে বলেন, সালমান এফ রহমান একজন উন্নয়নমনা ব্যক্তি। তিনি উন্নয়নে বিশ্বাসী। এলাকার উন্নয়ন করার লক্ষ্যে তিনি এমপি হওয়ার আগে থেকেই কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি এমপি হলে এ এলাকা উন্নয়নের জোয়ারে ভেসে যাবে। তাই এলাকা ও আপনাদের উন্নয়নের স্বার্থে আমি সালমান এফ রহমানকে সমর্থন দিয়েছি। তিনি জনসাধারণের উদ্দেশে আরও বলেন, আজ থেকেই আপনারা আপনাদের সুবিধা-অসুবিধার কথা লিপিবদ্ধ করুন। সালমান এফ রহমান আমাকে কথা দিয়েছেন তিনি আপনাদের সব সমস্যার সমাধান করে দেবেন। তাই ৩০ ডিসেম্বর নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে এখন থেকে কাজ শুরু করে দিন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য আ. বাতেন মিয়া, দৈনিক আমাদের সময়ের জেনারেল ম্যানেজার মোহা. ফিরোজ আলী, নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, সাধারণ সম্পাদক মো. জালাল উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহসম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন, আওয়ামী লীগের উপকমিটির সদস্য আসীম সরকার, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম মুস্তফা শিমু, বিশিষ্ট সমাজসেবক কেএস আলম পোখরাজ, ইউপি চেয়ারম্যান আ. ওয়াদুদ মিয়া, দেওয়ান তুহিনুর রহমান তুহিন, সাবেক চেয়ারম্যান সুবেদুজ্জামান সুবেদ প্রমুখ।